বৈচিত্র্য আনতেই তাইজুলের অ্যাকশনে পরিবর্তন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
মঙ্গলবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, বিকাল ৪:৩৭

সিনিয়র করেসপন্ডেন্টঃ সম্প্রতি বোলিং অ্যাকশনে পরিবর্তন এনেছেন তাইজুল ইসলাম। আগে সাইড আর্ম থেকে ডেলিভারি দিতেন তিনি। এখন বল ছুঁড়েন কিছুটা ড্যানিয়েল ভেট্টোরির মতো, হাত শরীর তথা মাথার অনেক কাছে থাকে। বোলিং বৈচিত্র্য আনতেই এই পরিবর্তন করেছেন তাইজুল। তিন ফরম্যাটে খেলতে গেলে এমনটা প্রয়োজন, বাঁহাতি স্পিনারের প্রতি স্পিন কোচ ভেট্টোরির পরামর্শ এমনই ছিল। যা মেনে চলছেন তাইজুল।

করোনাকালে নতুন অ্যাকশনে বোলিংয়ের অনুশীলন করে যাচ্ছেন তিনি। নিয়মিতই নেটে তামিম-মুশফিকদের বোলিং করছেন। এবং নতুন অ্যাকশনে অনেকটাই মানিয়ে উঠেছেন বলে দাবি তাইজুলের। মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমকে এমনটাই বলেছেন তিনি।

নিজের নতুন অ্যাকশন সম্পর্কে তাইজুল বলেছেন, ‘আমি ব্যক্তিগতভাবে বোলিং নিয়ে কাজ করেছি। আমি ভেট্টোরির সাথে কথা বলেছি যে আমার অ্যাকশনের বিষয়ে, মাঝখানে অ্যাকশন বদলেছিও। ব্যাটসম্যানদেরকে এখন বলও করতেছি। আমার শরীরের সাথে অ্যাকশনটা মানিয়ে গেছে। এখন দুই ঘন্টা বোলিং করতেও সমস্যা হচ্ছেনা। আত্মবিশ্বাস লেভেল বলতে এখন ব্যাটসম্যানদের বল করা শুরু করেছি দুই সপ্তাহ হচ্ছে। আত্মবিশ্বাসটা বাড়তেছে, কিছুদিন গেলে আত্মবিশ্বাস আরও বেড়ে যাবে।’

আগের অ্যাকশনের সঙ্গে বর্তমান অ্যাকশনের পার্থক্য জানাতে গিয়ে বাঁহাতি এই স্পিনা বলেছেন, ‘মূলত আমার আগের যে অ্যাকশনটা ছিল জায়গায় জায়গায় বল করাটা অনেক সুবিধা ছিল। কিন্তু ঐ অ্যাকশনটাতে তিন ফরম্যাটে চালিয়ে নেওয়া কঠিন। বৈচিত্রের মাত্রাটা একটু কম ছিল। এখন যে নতুন বোলিং অ্যাকশনটা এটা নিয়ে ভেট্টোরির সাথে কথা বলেছি সে বলল এটা দিয়ে তিন ফরম্যাটে খেলতে পারবা। যার জন্য বিভিন্ন দিক চিন্তা করে, বলের বাউন্সের দিক চিন্তা করে, বিভিন্ন বৈচিত্রের কথা চিন্তা করে অ্যাকশনটা পরিবর্তন করা। আমি ইতোমধ্যে ফলাফলও পাচ্ছি, ব্যাটসম্যানদের বল করে। বৈচিত্রের দিকে সাহায্য করছে নতুন অ্যাকশনটা।’

- নট আউট/এমজেএ