পেসারদের দিনে মাহমুদউল্লাহদের জয়

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর ২০২০, রাত ১১:১১

স্পেশাল করেসপন্ডেন্টঃ বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের বৃষ্টি বিঘ্নিত দ্বিতীয় ম্যাচে পেস বোলাররা দাপট দেখিয়েছেন। ২২ গজে দুর্দান্ত বোলিংয়ে তারা কাঁপিয়েছেন ব্যাটসম্যানদের। টস জিতে আগে বোলিং করা মাহমুদউল্লাহ একাদশের রুবেল হোসেন-সুমন খান বিধ্বংসী বোলিং করেছেন। তাতেই তামিম ইকবালের একাদশের ব্যাটিং লাইন লন্ডভন্ড হয়ে গেছে। পরে সাইফউদ্দিন-মুস্তাফিজুর রহমানও বল হাতে দুরন্ত শুরু এনে দিয়েছিলেন তামিম একাদশকে। শূন্য রানে ৩ উইকেট হারালেও মাহমুদউল্লাহ একাদশকে পথ হারাতে দেননি মুমিনুল হক ও নুরুল হাসান সোহানের ব্যাটিং।

বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ও টি-২০ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর মুখোমুখি ম্যাচে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠলেন টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল। মঙ্গলবার মিরপুর স্টেডিয়ামে বৃষ্টির পর হওয়া উইকেট বর্ষণ থামিয়েছেন তিনি ও সোহান। তাতেই টুর্নামেন্টে প্রথম জয়ের দেখা পেল মাহমুদউল্লাহ একাদশ। আজ তামিম একাদশকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে দলটি।

ম্যাচের বয়স ৩ ওভার না যেতেই নামে বৃষ্টি। এক পশলা বৃষ্টিতে ম্যাচের দৈর্ঘ্য কমে ৪৭ ওভার হয়। দুই পেসার রুবেল-সুমন খানের পর স্পিনারদের ঘূর্ণিতে মাত্র ২৩.১ ওভারে ১০৩ রানেই গুটিয়ে যায় তামিম একাদশের ইনিংস। পরে ২৭ ওভারে ৫ উইকেটে ১০৬ রান তুলে ম্যাচ জিতে নেয় মাহমুদউল্লাহর দল।

১০৪ রানের টার্গেটে নামা মাহমুদউল্লাহ একাদশ সাইফউদ্দিন-মুস্তাফিজের তোপে পড়ে। নাঈম শেখকে ফেরান মুস্তাফিজ। সাইফউদ্দিন তৃতীয় ওভারে লিটন দাস, ইমরুলকে ফেরালে ৩ উইকেট হারায় দলটি। উইকেট পতনের এই বর্ষণ থামিয়েছেন মুমিনুল হক ও অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। দলীয় ৩৯ রানে তাইজুলের বলে বোল্ড হন মাহমুদউল্লাহ (১০)। নুরুল হাসান সোহানকে নিয়ে দলকে এগিয়ে নেন মুমিনুল। তারা ৩৮ রানের জুটি গড়েন। মুমিনুল ৩৯ রান করে ফিরেন। অপরাজিত ৪১ রান করে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন সোহান। সাব্বির অপরাজিত ৪ রান করেন। সাইফউদ্দিন, তাইজুল ২টি করে উইকেট পান।

এর আগে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে তামিমকে (২) এলবির ফাঁদে ফেলেন রুবেল। ২২ গজে দুই তামিমের (তামিম ইকবাল, তানজিদ হাসান তামিম) জুটিটা দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। বৃষ্টির পর খেলা শুরু হলে অষ্টম ওভারে তানজিদ হাসান তামিম ও মিঠুনকে ফেরান রুবেল। ইনিংস সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন তামিম জুনিয়র। পরে মিডল অর্ডারে ধ্বস নামান সুমন। তার শিকার হয়ে বিজয় (২৫), দিপু, মোসাদ্দেক ফিরেন সাজঘরে। শেষ দিকে আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ও মিরাজ ২টি করে উইকেট নিয়ে মাহমুদউল্লাহর ইনিংসের লেজটা গুটিয়ে দেন। মেহেদী হাসান ১৯, সাইফউদ্দিন ১২ রান করেন। রুবেল ১৬ রানে ও সুমন খান ৩১ রানে ৩টি করে উইকেট নেন।  

 

নটআউট/এমজেএ


ব্যাঙ্গালুরো বনাম চেন্নাই সুপার কিংস
৪৪তম ম্যাচ, দুবাই
২৫ অক্টোবর ২০২০, বিকাল ৪টা
আইপিএল, ২০২০

রাজস্থান রয়েলস বনাম মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স
৪৫তম ম্যাচ, আবুধাবি
২৫ অক্টোবর ২০২০, রাত ৮টা
আইপিএল, ২০২০

পাকিস্তান বনাম জিম্বাবুয়ে
১ম ওয়ানডে, রওয়ালপিন্ডি
৩০ অক্টোবর ২০২০
জিম্বাবুয়ের পাকিস্তান সফর, ২০২০

পাকিস্তান বনাম জিম্বাবুয়ে
২য় ওয়ানডে, রওয়ালপিন্ডি
১ নভেম্বর ২০২০
জিম্বাবুয়ের পাকিস্তান সফর, ২০২০

পাকিস্তান বনাম জিম্বাবুয়ে
৩য় ওয়ানডে, রওয়ালপিন্ডি
৩ নভেম্বর ২০২০
জিম্বাবুয়ের পাকিস্তান সফর, ২০২০

পাকিস্তান বনাম জিম্বাবুয়ে
১ম টি-টুয়েন্টি, রওয়ালপিন্ডি
৭ নভেম্বর ২০২০
জিম্বাবুয়ের পাকিস্তান সফর, ২০২০

সবশেষ ফলাফল [ ফলাফল পাতা ]

কিংস এলিভেন পাঞ্জাব 12 রানে জয়ী।
৪৩তম ম্যাচ, দুবাই
কিংস এলিভেন পাঞ্জাব 126/7 (20.0)
সানরাইজার্স হাইদ্রাবাদ 114/10 (19.5)
২৪ অক্টোবর ২০২০, রাত ৮টা
আইপিএল, ২০২০
কলকাতা 59 রানে জয়ী।
৪২তম ম্যাচ, আবুধাবি
কলকাতা 194/6 (20.0)
দিল্লী ক্যাপিটালস 135/9 (20.0)
২৪ অক্টোবর ২০২০, বিকাল ৪টা
আইপিএল, ২০২০
মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স 10 উইকেটে জয়ী।
৪১তম ম্যাচ, শারজা
চেন্নাই সুপার কিংস 114/9 (20.0)
মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স 116/0 (12.2)
২৩ অক্টোবর ২০২০, রাত ৮টা
আইপিএল, ২০২০
সানরাইজার্স হাইদ্রাবাদ 8 উইকেটে জয়ী।
৪০তম ম্যাচ, দুবাই
রাজস্থান রয়েলস 154/6 (20.0)
সানরাইজার্স হাইদ্রাবাদ 156/2 (18.1)
২২ অক্টোবর ২০২০, রাত ৮টা
আইপিএল, ২০২০
ব্যাঙ্গালুরো 8 উইকেটে জয়ী।
৩৯তম ম্যাচ, আবুধাবি
কলকাতা 84/8 (20.0)
ব্যাঙ্গালুরো 85/2 (13.3)
২১ অক্টোবর ২০২০, রাত ৮টা
আইপিএল, ২০২০
কিংস এলিভেন পাঞ্জাব 5 উইকেটে জয়ী।
৩৮তম ম্যাচ, দুবাই
দিল্লী ক্যাপিটালস 164/5 (20.0)
কিংস এলিভেন পাঞ্জাব 167/5 (19.0)
২০ অক্টোবর ২০২০, রাত ৮টা
আইপিএল, ২০২০