বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপ জিতল মাহমুদউল্লাহ একাদশ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, রাত ১০ঃ২৫

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট: বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপে লিগ পর্বের দুই ম্যাচে নাজমুল একাদশের কাছে হেরেছিল মাহমুদউল্লাহ একাদশ। তৃতীয় সাক্ষাতে আর ভুলে করেনি দলটি। টুর্নামেন্টের সবচেয়ে বড় মঞ্চে নিজেদের সেরাটা মেলে ধরলো মাহমুদউল্লাহর দল। টুর্নামেন্টের শুরুতে ধুঁকলেও ফাইনালে দাপট দেখিয়েছে তারা।

পেসারদের আগুণ ঝরা বোলিংয়ের পর লিটন দাস, ইমরুল কায়েসের জোড়া হাফ সেঞ্চুরিতে ফাইনালে অনায়স জয় পেয়েছে দলটি।

রোববার মিরপুর স্টেডিয়ামে ফাইনালে নাজমুল একাদশকে ৭ উইকেটে হারিয়ে বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের ট্রফি জিতেছে মাহমুদউল্লাহ একাদশ। চ্যাম্পিয়ন হয়েই টুর্নামেন্ট শেষ করলো দলটি।

আজ টসে হেরে আগে ব্যাট করে সুমন খানের বোলিং তোপে ৪৭.১ ওভারে ১৭৩ রানে অলআউট হয়েছিল নাজমুল একাদশ। জবাবে ২৯.৪ ওভারে ৩ উইকেটে ১৭৭ রান তুলে ম্যাচ জিতে নেয় মাহমুদউল্লাহ একাদশ। ৩৮ রানে ৫ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হন ডানহাতি পেসার সুমন খান।

রান তাড়া করতে নেমে সংগ্রাম করেতে হয়নি মাহমুদউল্লাহর দলকে। মুমিনুল, মাহমুদুল হাসান জয় দ্রুত ফিরলেও লিটনের হাফ সেঞ্চুরি এনে দিয়েছে দারুণ শুরু। ১০টি চারে ৬৮ রান করে ফিরেন লিটন। পরে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন ইমরুলও। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান। ইমরুল অপরাজিত ৫৩, মাহমুদউল্লাহ অপরাজিত ২৩ রান করেন।

এর আগে ইনিংসের প্রথম ওভারে সাইফ হাসানকে (৪) ফেরান রুবেল। চোখে কিছু পড়ায় অবসর নিয়ে সৌম্য ড্রেসিংরুমে ফেরার উইকেটে আসেন ইনফর্ম মুশফিক। ১২ রান করে সুমন খানের বলে এলবির ফাঁদে পড়েন তিনি। পরে ১৫তম ওভারে এক বলের ব্যবধানে সৌম্য (৫), আফিফকে (০) ফেরত পাঠান তরুণ এই পেসার। ৪৫ রানে ৪ উইকেট হারানো নাজমুল একাদশের বিপদ আরও বাড়ান মিরাজ। অধিনায়ক শান্ত ৩২ রান করে ক্যাচ তুলে ফিরেন দলীয় ৬৪ রানে। ৬ষ্ঠ উইকেটে ইরফান শুক্কুর- তৌহিদ হৃদয় ৭০ রানের জুটি গড়ে প্রতিরোধ গড়েন। মাহমুদউল্লাহর বলে ক্যাচ দেন ২৬ রান করা তৌহিদ হৃদয়। একপ্রান্ত আগলে ইরফান হাফ সেঞ্চুরি করলেও রুবেল-সুমন খানরা নিয়মিত আঘাত হানেন অপরপ্রান্তে।

নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে ইরফান ৭৭ বলে ৭৫ রান (৮ চার, ২ ছয়) করেন। মাহমুদউল্লাহ একাদশের পক্ষে সুমন খান ৩৮ রানে ৫টি, রুবেল ২টি, এবাদত, মাহমুদউল্লাহ, মিরাজ ১টি করে উইকেট পান।     

 

নটআউট/এমজেএ/আরএ


ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া
৩য় ওয়ানডে, ক্যানবেরা
২ ডিসেম্বর ২০২০, সকাল ৯ঃ৪০
ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফর, ২০২০/২১

ফরচুন বরিশাল বনাম বেক্সিমকো ঢাকা
৯ম ম্যাচ, মিরপুর, ঢাকা
২ ডিসেম্বর ২০২০, দুপুর ১ঃ৩০
বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি কাপ, ২০২০

মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী বনাম গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম
১০ম ম্যাচ, মিরপুর, ঢাকা
২ ডিসেম্বর ২০২০, সন্ধ্যা ৬ঃ৩০
বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি কাপ, ২০২০

ওয়েষ্ট ইন্ডিজ বনাম নিউজিল্যান্ড
১ম টেষ্ট, হ্যামিল্টন
০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ভোর ৪টা
ওয়েষ্ট ইন্ডিজের নিউজিল্যান্ড সফর, ২০২০

গল গ্ল্যাডিয়েটরস বনাম জাফনা স্টেলায়ন্স
৯ম ম্যাচ, হাম্বানটোটা
০৩ ডিসেম্বর ২০২০, বিকাল ৪টা
এলপিএল, ২০২০

ডাম্বুলা ভাইকিংস বনাম ক্যান্ডি তুস্কার্স
১০ম ম্যাচ, হাম্বানটোটা
০৩ ডিসেম্বর ২০২০, রাত ৮:৩০
এলপিএল, ২০২০
ইংল্যান্ড 9 উইকেটে জয়ী।
৩য় টি-টুয়েন্টি, কেপটাউন
দক্ষিন আফ্রিকা 191/3 (20.0)
ইংল্যান্ড 192/1 (17.4)
১ ডিসেম্বর ২০২০, রাত ১০টা
ইংল্যান্ডের দঃ আফ্রিকা সফর, ২০২০
জাফনা স্টেলায়ন্স 54 রানে জয়ী।
৮ম ম্যাচ, হাম্বানটোটা
জাফনা স্টেলায়ন্স 185/8 (20.0)
ক্যান্ডি তুস্কার্স 131/10 (17.1)
০১ ডিসেম্বর ২০২০, রাত ৮:৩০
এলপিএল, ২০২০
ডাম্বুলা ভাইকিংস 28 রানে জয়ী।
৭ম ম্যাচ, হাম্বানটোটা
ডাম্বুলা ভাইকিংস 175/9 (20.0)
কলম্বো কিংস 147/10 (18.4)
০১ ডিসেম্বর ২০২০, বিকাল ৪টা
এলপিএল, ২০২০
ক্যান্ডি তুস্কার্স 25 রানে জয়ী।
৬ষ্ঠ ম্যাচ, হাম্বানটোটা
ক্যান্ডি তুস্কার্স 196/5 (20.0)
গল গ্ল্যাডিয়েটরস 171/7 (20.0)
৩০ নভেম্বর ২০২০, রাত ৮:৩০
এলপিএল, ২০২০
জেমকন খুলনা 37 রানে জয়ী।
৮ম ম্যাচ, মিরপুর, ঢাকা
জেমকন খুলনা 146/8 (20.0)
বেক্সিমকো ঢাকা 109/10 (19.2)
৩০ নভেম্বর ২০২০, সন্ধ্যা ৬ঃ৩০
বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি কাপ, ২০২০
জাফনা স্টেলায়ন্স 66 রানে জয়ী।
৫ম ম্যাচ, হাম্বানটোটা
জাফনা স্টেলায়ন্স 218/7 (20.0)
ডাম্বুলা ভাইকিংস 152/10 (19.1)
৩০ নভেম্বর ২০২০, বিকাল ৪টা
এলপিএল, ২০২০