প্রচ্ছদ / জনপ্রিয় পাঁচ উইলোখন্ড

ছোটবেলায় টেলিভিশনের পর্দায় প্রিয় ক্রিকেটারকে যে ব্রান্ডের ব্যাট দিয়ে খেলতে দেখতাম, সেই ব্যাটই কেনার তীব্র ইচ্ছা পোষন করতাম। এমনকি দোকানে গিয়ে সেই ব্রান্ডের নাম সম্বলিত ব্যাট খুঁজতাম। ব্যাট যেমনই হোক, সেই ব্রান্ডের স্টিকার ব্যাটে থাকলেই আনন্দে আটখানা হয়ে যাওয়ার মতো অবস্থা হতো। আমি নিশ্চিত, অনেকের সাথেই এমনটি হয়েছে। তখনও জানতাম না যে, বিভিন্ন ব্রান্ডের ব্যাট ব্যবহার করার জন্য কোম্পানিগুলো খেলোয়াড়দের সঙ্গে মোটা অংকের টাকার চুক্তি করে। চলুন পাঠক, আজ দেখে নেওয়া যাক বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় পাঁচ ব্রান্ডের ব্যাট বৃত্তান্ত -

1. Madras Rubber Factory (MRF)

MRF আদৌতে কোন  ক্রিকেট ব্যাট প্রস্তুতকারক কোম্পানি নয়! জ্বি পাঠক, আপনি ঠিকই পড়েছেন।  MRF মূলতঃ বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম একটি টায়ার প্রস্তুতকারক কোম্পানি। তবে ক্রিকেটের সঙ্গে তাদের সখ্যতা বেশ পুরোনো। নব্বইয়ের দশকে তাদের প্রথম যাত্রা শুরু হয় মাস্টার ব্লাস্টার শচীন টেন্ডুলকারকে দিয়ে। এরপর তারা একে একে স্পন্সর করেন ব্রায়ান লারা, স্টিভ ওয়াহ, গৌতম গাম্ভীর, রোহিত শর্মাদের মতো নামী ক্রিকেটারদের। বর্তমান সময়ের সেরা ব্যাটসম্যান ভিরাট কোহলি, এ বি ডি ভিলিয়ার্স এবং শিখর ধাওয়ানকে MRF ব্যাট দিয়ে খেলতে দেখা যায়। 

2. Kookaburra 

কোকাবুরা একটি অস্ট্রেলিয়ান ক্রীড়া সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান যারা সাধারণত ক্রিকেট এবং হকির সরঞ্জাম সরবরাহ করে থাকে। কোকাবুরা ক্রিকেট ব্যাট জনপ্রিয়তার দিক থেকে বেশ উপরে এবং এর কোয়ালিটি নিঃসন্দেহে সন্তোষজনক। এই ব্রান্ডের ব্যাটের বিশেষ দিক হচ্ছে, এগুলো যান্ত্রিকতার ওপর পুরোপুরি নির্ভরশীল না হয়ে হাতে তৈরি হয়। ওজনে হালকা এ ব্যাট দিয়ে ব্যাটসম্যান সুন্দর ব্যালেন্স বজায় রেখে দ্রুত অনেক উদ্ভাবনী শটস খেলতে পারেন। ভারতীয় উপমহাদেশে কোকাবুরা ব্যাটের প্রসার কম থাকলেও এই ব্রান্ডের ব্যাট দিয়ে বেশি খেলে থাকেন অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটাররা। কোকাবুরার টপ মডেলের  ব্যাটগুলো হচ্ছে - Kahuna, Fever, Obsidian, Ghost, XLR8, Blaze এবং Surge. একসময় কোকাবুরা দিয়ে রিকি পন্টিং, ব্রাড হজ, এ বি ডি ভিলিয়ার্সদের খেলতে দেখা গেলেও বর্তমানে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, জস বাটলার, মার্টিন গাপটিল, টিম পেইন, উসমান খাজা, এলেক্স ক্যারি সহ অনেক নামী ক্রিকেটারদের ব্যাট স্পন্সর এই কোকাবুরা।

3. Sareen Sports (SS)

দক্ষিণ এশিয়ার বেশিরভাগ ক্রিকেটারদের পছন্দের তালিকায় প্রথমদিকে রয়েছে SS ব্রান্ডের ব্যাট। এই ব্রান্ডের দুইটি মডেলের ব্যাট বেশ জনপ্রিয়, একটি TON এবং অপরটি Sunridges. এই SS ব্রান্ডের ব্যাটগুলোর অন্যতম বিশেষত্ব হচ্ছে, এর হাতলগুলো উন্নতমানের বেতের হওয়ায় অনেক নমনীয় যা পাওয়ার হিটিং এ দারুণ কার্যকরী। কুমার সাঙ্গাকারা, দীনেশ কার্তিক, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোহাম্মদ নবী, কাইরন পোলার্ড, থিসারা পেরেরা, কলিন ডি গ্রান্ডহোমসহ প্রমুখ ক্রিকেটারকে SS ব্যাট দিয়ে খেলতে দেখা গেছে।

4. Sanspariel Greenlands (SG)

১৯৩১ সালে পাকিস্তানের শিয়ালকোটে যাত্রা শুরু করা SG কোম্পানির ক্রিকেট ব্যাট, বল, প্যাড, গ্লাভস, হেলমেট বিশ্বব্যাপী বেশ সমাদৃত। ক্রিকেটীয় সরঞ্জামের দিক থেকে ভারতের এক নম্বর ব্রান্ড হিসেবে গণ্য করা হয় SG কে। এ ব্রান্ডের ব্যাটের হাতল প্রিয়িয়াম সারাওয়াক বেত দিয়ে তৈরি হওয়ায় তা শট হিটিংএ বেশ সহায়তা করে এবং শক শোষণে দারুণ কার্যকরী। বর্তমানে চেতেশ্বর পূজারা, সাকিব আল হাসান, মুমিনুল হক, রিশব পান্ত, এভিন লুইস, হার্দিক পান্ডিয়া, রশিদ খানসহ অনেক নামিদামি ক্রিকেটারকে এই ব্যাট ব্যবহার করতে দেখা যায়। 

5. Spartan 

স্পার্টান ব্যাটের নাম শুনলেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে ক্রিস গেইলের প্রতিচ্ছবি, যিনি হাফ সেঞ্চুরি বা সেঞ্চুরির পর ব্যাট উঁচিয়ে ব্যাটের স্টিকারে স্পার্টান এর নিচে 'The Boss' লেখা অংশটির দিকে তাক করেন। অস্ট্রেলিয়া ভিত্তিক এই কোম্পানিটি তাদের ব্রান্ডের ব্যাট ব্যবহারের জন্য বিখ্যাত ক্রিকেটারদের সাথে লম্বা সময়ের জন্য মোটা অংকের চুক্তি করেন। ক্রিস গেইল ছাড়াও এই ব্রান্ডের ব্যাট দিয়ে মাইকেল ক্লার্ক, মহেন্দ্র সিং ধোনি, কেভিন পিটারসেন, এউইন মরগান, ডেভিড ওয়ার্নার, আন্দ্রে রাসেল, ম্যাট প্রায়র সহ অনেককেই মাঠ মাতাতে দেখা গেছে। সুপার গ্রেড আই ইংলিশ উইলো দিয়ে তৈরি এ ব্যাটের হাতল বেত ও রাবার দিয়ে তৈরি যা দুর্দান্ত নমনীয়তার সাথে পর্যাপ্ত শক্তি সরবরাহ করে। এতে পাওয়ার হিটিং বেশ নিখুঁত হয়।

  • ট্যাগস

এ বিভাগের আরও নিউজ

টেলএন্ডারদের দৈন্য ব্যাটিং একাদশ

সোমবার, ১১ জানুয়ারি ২০২১, দুপুর ১২:১১

মুহাম্মদ আশিক সৈকতঃ ক্রিকেটীয় পরিভাষায় 'টেলএন্ডার' বলতে সাধারণত একদম নিচের সারির ব্যাটসম্যানদের বোঝানো হয়, যাদের ব্যাটিং অর্ডার সাধারণত আট নম্বর থেকে শুরু হয়। মূলতঃ তাদের প্রধান কা

উইকেট রক্ষার প্রক্সি রক্ষক

বৃহস্পতিবার, ৭ জানুয়ারি ২০২১, সকাল ১১:৪৯

মুহাম্মদ আশিক সৈকতঃ একদা এক সময় ছিল যখন 'উইকেটরক্ষক - ব্যাটসম্যান' টার্মটা ক্রিকেটে সেভাবে প্রচলিত ছিলনা। কারণ, একজন উইকেটরক্ষক উইকেটের পেছনে ভাল করলে আর কাজ চালানোর মতো ব্যাটিং জা

দ্য পেইন কিলার!

বুধবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২০, রাত ১২:২৭

মুহাম্মদ আশিক সৈকতঃ আমার স্পষ্ট মনে আছে, যখন আমার বান্ধবী কাজে যেত, আমি চুপচাপ সোফায় বসে কাঁদতাম। শুধু মনে হতো, সবাইকে হতাশ করছি আমি। লম্বা সময় ধরে রান পাচ্ছিলাম না। খেতে পারতাম না

ওয়েষ্ট ইন্ডিজের বাংলাদেশ সফর, ২০২১

বাংলাদেশ  ওয়েষ্ট ইন্ডিজ

২০ জানুয়ারি ২০২১, দুপুর ২টা

বিগ ব্যাস, ২০২০/২১

মেলবোর্ন রেনেগেডস  মেলবোর্ন স্টারস

২০ জানুয়ারি ২০২১, দুপুর ২:৩০

সুপার স্ম্যাশ, ২০২০/২১

নর্দান নাইটস  ক্যান্টারবুরি

২১ জানুয়ারি ২০২১, দুপুর ১২ টা

আফগানিস্তানের আরব আমিরাত সফর, ২০২১

আফগানিস্তান  আয়ারল্যান্ড

২১ জানুয়ারি ২০২১, দুপুর ১২ টা

বিগ ব্যাস, ২০২০/২১

অ্যাডিলেড স্ট্রাইকারস  ব্রিসবেন হিট

২১ জানুয়ারি ২০২১, দুপুর ২:৩০

বিগ ব্যাস, ২০২০/২১

হোবার্ট হারিকেনস উইকেটে জয়ী

৪৩তম ম্যাচ, ক্যানবেরা

সুপার স্ম্যাশ, ২০২০/২১

সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিকস উইকেটে জয়ী (ডি/এল পদ্ধতি)

১৯তম ম্যাচ, নিউ প্লেমাউথ

বিগ ব্যাস, ২০২০/২১

মেলবোর্ন স্টারস উইকেটে জয়ী

৪২তম ম্যাচ, মেলবোর্ন

সুপার স্ম্যাশ, ২০২০/২১

নর্দান নাইটস উইকেটে জয়ী (ডি/এল পদ্ধতি)

১৮তম ম্যাচ, অকল্যান্ড

বিগ ব্যাস, ২০২০/২১

সিডনি সিক্সারস উইকেটে জয়ী

৪১তম ম্যাচ, ক্যানবেরা

আফগানিস্তানের আরব আমিরাত সফর, ২০২১

১৮ জানুয়ারি ২০২১ -  ২৩ জানুয়ারি ২০২১

ইংল্যান্ডের শ্রীলংকা সফর, ২০২১

১৪ জানুয়ারি ২০২১ -  ২৬ জানুয়ারি ২০২১

সুপার স্ম্যাশ, ২০২০/২১

২৪ ডিসেম্বর ২০২০ -  ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

বিগ ব্যাস, ২০২০/২১

১০ ডিসেম্বর ২০২০ -  ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০